পরিচয়

জন্ম:
মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজলার রায়কোট ইউনিয়নের পূর্ব বামপাড়া গ্রামের ছায়া সুনিবিড় পরিবেশে, ডাকাতিয়া নদীর অববাহিকায় ১৯৮৭ সালের ২ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন।

শিক্ষাজীবন:
মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত শিক্ষাজীবনের শুরুতে ভর্তি হন বেলটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। ৪র্থ শ্রেণী উত্তীর্ণ হওয়ার পর ওনার অভিভাবকগণ ওনাকে পূর্ব বামপাড়া মাদানীয়া দাখিল মাদরাসায় পুনরায় ৪র্থ শ্রেণীতে ভর্তি করেন। এরপরের বছর তিনি ভর্তি হন মনতলী রহমানিয়া সিনিয়র ফাযিল মাদরাসায়। সেখানে তিনি ৮ম শ্রেণী পড়াশোনা করেন। এরপর তিনি ভর্তি হন ফেনীর ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আল জামেয়াতুল ফালাহিয়া মাদরাসায়। এখান থেকেই তিনি কৃতিত্বের সাথে দাখিল ও আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। এরপর তিনি চলে আসেন প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে। ভর্তি হন আরবি সাহিত্যে। অনার্স এবং মাস্টার্স কমপ্লিট করেন ঢাকা ইউনিভার্সিটির আরবি সাহিত্য থেকেই। এর পাশাপাশি ফাজিল ও কামিল কমপ্লিট করেন সরকারি মাদ্রাসা-ই-আলিয়া, ঢাকা থেকে। বর্তমানে তিনি এমফিল গবেষণারত।

সাংগঠনিক জীবন:
মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত তার সাংগঠনিক জীবন শুরু করেন ফেনীতে। বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কর্মী হয়েছেন ১৯৯৯ সালে। সাথী শপথ নিয়েছেন ২০০১ সালে। সর্বোচ্চ শপথ নিয়েছেন ২০০৩ সালে। তিনি ঢাকা আলিয়া, মতিঝিল থানা ও ঢাকা মহানগরী পূর্ব শাখার বিভিন্ন দায়িত্ব পালন শেষে ২০১১ সালে ঢাকা মহানগরী পূর্ব শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ২০১২ সালে কেন্দ্রীয় এইচআরডি সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৩ ও ২০১৪ সালে তিনি কেন্দ্রীয় সাহিত্য সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৫ সালে কেন্দ্রীয় অফিস সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। কেন্দ্রীয় সেক্রেটারী জেনারেলের দায়িত্ব পালন করেন ২০১৬ সালে। ২০১৭ সেশনে মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত সদস্যদের প্রত্যক্ষ ভোটে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচিত হন।